মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

অটিজম বার্তা, ইন্টারেকটিভ স্ক্রিনিং টুলস

 

অটিজম বার্তা

 

কুসংস্কার ও অজ্ঞতার কারণে অটিস্টিক শিশুরা আজ শিক্ষা ও নানা সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অটিজম নির্ণয় ও নিয়মিত পর্যবেক্ষণের জন্য প্রশিক্ষিত ডাক্তার ও মনস্তত্ববিদ প্রয়োজন যা বাংলাদেশে অপ্রচলিত। এছাড়া অভিভাবকদের মধ্যেও প্রাথমিক পর্যায়ে অটিজম নিয়ে সচেতনতার যথেষ্ট অভাব বিদ্যমান। এই সমস্যাগুলো কাটিয়ে উঠার জন্য আমাদের সয়ংক্রিয় টেকনিক্যাল টুলস এর প্রয়োজন। বর্তমানে অটিজম নিরূপণ ও পর্যবেক্ষণের জন্য প্রশিক্ষিত লোক ও নির্দিষ্ট অটিজম সেন্টারে ম্যানুয়াল পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়, যদিও তা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই শহর অঞ্চলের মধ্যে সীমাবদ্ধ।

 

‘অটিজম বার্তা’ একটি মোবাইল ভিত্তিক, ইন্টারেক্টিভ ও কমিউনিটি বেইজড স্ক্রিনিং টুল- যা অটিজম নিরুপণ ও পর্যবেক্ষণের কাজে ব্যবহার করা হয়। পিতা-মাতা, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যবিষয়ক প্রশিক্ষিত কর্মকর্তাগণ অ্যাপটি ব্যবহার করে অটিজম স্ক্রিনিং ও পরবর্তী করণীয় বিষয়গুলো জানতে পারবেন। অ্যাপটি দ্বারা পরীক্ষার মাধ্যমে একটি শিশুর অটিজম হওয়ার সম্ভাবনা প্রকাশ পেলে তার খবর নিকটস্থ অটিজম সেন্টারে সয়ংক্রিয়ভাবে অবহিত করা হয়। পাশাপাশি শিশুর অভিভাবককে পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে অবহিত করা হয়। অ্যাপটির মাধ্যমে শিশুর অবস্থা মনিটর করা ও পরবর্তীতে সময় মত পিতা-মাতাকে মোবাইলে অবহিত করা হয়। পাশাপাশি অটিজম বিষয়ক সামাজিক সচেতনতা ও শিক্ষিত করা ‘অটিজম বার্তার’ অন্যতম লক্ষ্য। পূর্বে অটিজম স্ক্রিনিং এর জন্য নিকটস্থ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে স্ক্রিন করতে ৩ থেকে ১০ ঘন্টা সময় ব্যয় হত। ‘অটিজম বার্তা’ অ্যাপটি ব্যবহারের ফলে শুধুমাত্র স্ক্রিনিং করতে ৫ থেকে ১০ মিনিট সময় লাগবে। অটিজম স্ক্রিনিং এখন ঘরে বসে বিনামূল্যেই করা যাবে। অটিজম বার্তা নামক মোবাইল অ্যাপটি প্রণয়নের কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। 


Share with :

Facebook Facebook